১৯শে জুন, ২০১৯ ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা :টেকনাফ থানার ওসিকে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবী

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০১৬

টেকনাফবার্তা২৪ডটকম 

গিয়াস উদ্দিন ভুলুটেকনাফ:
কক্সবাজারের টেকনাফে ৬ সাংবাদিকের উপর হামলা ও কেড়ে নেওয়া মালামাল অবিলম্বে উদ্ধার এবং ইয়াবা স¤্রাট নুরুল হক ভুট্রোকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ থেকে অবিলম্বে টেকনাফ থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবী তুলে বক্তারা বলেন, ঘটনার ৭ দিন অতিবাহিত হলেও প্রধান আসামি ও ইয়াবা স¤্রাট হামলাকারী নুরুল হক ভূট্টো ও তার বাহিনী এখনো ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছে। সাংবাদিকদের লুট হওয়া মূল্যবান ক্যামরাসহ মালামাল উদ্ধার না হওয়ায় ওসির আবদুল মজিদের নিরব ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।nhg
বক্তারা আরো বলেন, ওসি যোগদানের পর থেকে টেকনাফে তালিকাভুক্ত, ইয়াবা, মানব পাচারকারি ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও তাদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছেনা। এমনকি পুলিশ ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মাসিক মাসোহারা নেওয়ারও অভিযোগ তুলেন বক্তারা।
সাংবাকিদের বৃহত্তর স্বাথে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে জড়িতদের গ্রেফতার ও ছিনিয়ে নেওয়া মালামাল উদ্ধার করতে না পারলে সাংবাদিকেরা অন্যত্রায় লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাবার ঘোষনা দেন বক্তারা।

বাসষ্টশন চত্বরে ১৯ মে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির আয়োজনে টেকনাফ বাস ষ্টেশনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় সাংবাদিক ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন ভূলুর স্বাগত বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি নুরতাজুল মোস্তফা শাহিনশাহ এর সভাপতিত্বে সাইফুল ইসলাম সাইফীর সঞ্চালনায় অনুষ্টিত প্রতিবাদ সভায় অনুষ্টিত হয়।

উক্ত সভায় প্রধান অতিথি উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মো: আলী বলেন, টেকনাফ থানার ওসি আবদুল মজিদ যোগদান করার পর থেকে টেকনাফের আইনkjhkuikশৃঙ্খলা দিন দিন অবনতি হচ্ছে। সম্প্রতি টেকনাফে নয়াপাড়া আনসার ক্যাম্প হামলায় আনসার কমান্ডার হত্যা, অস্ত্র ও গুলি লুট এবং নাজির পাড়ায় দায়িত্ব পালনকালে ৬ সাংবাদিকদের কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় মামলা হলেও জড়িত প্রধান অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা করতে এখনো দেখা যায়নি।
ওসিকে উদ্দ্যেশ করে আরো বলেন, আপনি বৃদ্ধ হয়ে গেছেন, আপনি থানার কর্মকর্তাদের পরিচালনা করতে ব্যর্থ। এরজন্য উধ্বর্তন দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে তাকে সরিয়ে নেওয়ার আহবান জানান। ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য টেকনাফ পৌরসভা মেয়র হাজি মো. ইসলাম জানান, আমরা ইয়াবা ব্যবসাকে ঘৃণা করি। সাংবাদিকদের উপর হামলাকারি ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে সব সময় সাংবাদিকদের পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাহবুব মোর্শেদ, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক মো: আলম বাহাদুর, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুন্না প্রমুখ। সভায় অংশগ্রহন করেন, টেকনাফ পৌরসভার প্যানেল মেয়র -৩ রুবিনা আক্তার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. হায়দার আলী, নজরুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আলী আকবর, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান, প্রচার সম্পাদ ইব্ররাহীম বাবলুসহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীসহ ব্যাংক কর্মকর্তা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

সাংবাদিক ইউনিটির সভাপতি নুরতাজুল মোস্তফা শাহিনশাহ সমাপনী বক্তব্য বলেন, টেকনাফ ওসি আবদুল মজিদ দায়িত্ব পালনের যোগ্যতা হারিয়েছেন। তিনি যোগদানের পর থেকে রেকর্ড পরিমান মামলা রুজু করলেও কোন আসামি গ্রেফতার করেননি। এর কারনে এলাকায় ইয়াবা, মানব পাচার ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরছে। তাই অতিসত্তর তাকে প্রত্যাহারের দাবী জানানো হয়।

টেকনাফ বার্তা ২৪ এ প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য




Leave a Reply

Your email address will not be published.