১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

টাঙ্গাইলের সখীপুরে খালুর বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বৃহস্পতিবার,৩১ আগস্ট

টেকনাফবার্তা২৪ডটকম

বুধবার রাতে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে তার খালুর বিরুদ্ধে সখীপুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ওই ধর্ষিতা ছাত্রীকে ডাক্তরি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ওই ছাত্রীর অভিযোগ, মাস দুই আগে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে নির্জন বনের ভেতরে নিয়ে তাকে প্রথমবার ধর্ষণ করে তার খালু। পরে গত ৭ জুলাই তাকে বাড়িতে একা পেয়ে দ্বিতীয়বার ধর্ষণ করা হয়। এ ধর্ষণের কথা কাউকে জানালে তাকে হত্যা করা হবে এমন হুমকি দেয় তার খালু।

পরে বিষয়টি তার মা-বাবার কাছে জানালে তারা স্থানীয় ইইপি সদস্য আব্দুর রউফ তালুকদারকে জানান। এসময় ওই ঘটনা মীমাংসার চেষ্টা হয়। তবে এ ঘটনায় ছাত্রীর পরিবার আইনের আশ্রয় নেন।

ছাত্রীর মা বলেন, বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে প্রথমবার ধর্ষণের শিকার হয় তার স্কুল পড়ুয়া মেয়ে। এ ঘটনার পর থেকে সে আর বিদ্যালয়ে যেতে চায় না।

ইউপি সদস্য আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, যে ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এলাকায় তিনি একজন মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত। এছাড়াও তিনি দাদনের ব্যবসায় লিপ্ত আছেন। অভিযোগ পাওয়ার পর বেশ কয়েকবার তাকে ডাকা হয়েছে। তবে তিনি আসেননি।

অভিযুক্ত খালুর বক্তব্য নিতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তার স্ত্রী বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। এটা খুবই লজ্জাজনক। তবে এটি সত্য নাকি মিথা তা বুঝতে পারছি না। আমার স্বামী যদি অপরাধি হয় তাহলে আমিও তার বিচার চাই।

এ প্রসঙ্গে সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকছুদুল আলম বলেন, ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে দেওবাড়ি গ্রামের খালু সমেস আলীর বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা নেয়া হয়েছে। তবে বিষয়টি সত্য না মিথ্যা সেটি জানা নেই। ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ডাক্তারি পরিক্ষা শেষে বিষয়টি নিশ্চিত হবে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটকেরও চেষ্টা চলছে।

উৎসঃ   জাগোনিউজ

টেকনাফ বার্তা ২৪ এ প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য