২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৮ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে গিয়াস উদ্দীনের বাড়ীতে হামলা

Thursday,31 May 2018

teknafbarta24.com

চট্রগ্রাম : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে মামলা হয়েছে।

বুধবার সকালে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন বাদী হয়ে এই মামলা করেন। এ ঘটনার পর সন্ধ্যায় হামলা হয়েছে গিয়াস উদ্দিন কাদেরের চট্টগ্রাম নগরের পৈতৃক বাড়ি গুডস হিলে। হামলাকারীরা ওই বাড়িতে আটটি গাড়ি এবং বারান্দা ও বাড়ির কক্ষের আসবাব ভাঙচুর করেছে।

বুধবার সন্ধ্যা সাতটা থেকে সাড়ে সাতটার মধ্যে গুডস হিলের বাড়িতে হামলা হয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। হামলাকারীর সংখ্যা ছিল ৩৫ থেকে ৪০ জন। তাদের হাতে লাঠিসোঁটা ছিল। আধা ঘণ্টার মধ্যে হামলা চালিয়ে ওই যুবকেরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাড়িতে হামলার ঘটনায় সরকার-সমর্থকদের দায়ী করেছে বিএনপি। তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে আওয়ামী লীগ।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সভাপতি শাহাদাত হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ‘ফটিকছড়িতে গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র সরকার-সমর্থক লোকজন গুডস হিলে হামলা চালাতে পারে। আমরা এই ঘটনায় স্তম্ভিত।’
হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে বিশ্বাসী নয়। একটি বাড়িতে এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলা হবে কেন?

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন বলেন, চট্টগ্রাম নগর বিএনপির ইফতার অনুষ্ঠান ও গুডস হিলে একই সময়ে গন্ডগোল হয়েছে। একই সময়ে পৃথক দুটি ঘটনা কেন ঘটেছে এবং কারা জড়িত পুলিশ তা যাচাই করে দেখছে।এর আগে সকালে ফটিকছড়ি থানায় প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে মামলা হয় গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী ও স্থানীয় বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে।

মামলার বাদী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন বলেন, গত মঙ্গলবার উপজেলা সদরের জে ইউ পার্কে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী। সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে কটূক্তি করেন। পরবর্তী সময়ে এর প্রতিবাদ করলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের হত্যার হুমকি দেন। এ ঘটনায় তিনি গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ছরোয়ার আলমগীরসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৬০ থেকে ৭০ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

ফটিকছড়ি থানার ওসি মো. জাকির হোসাইন মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি এবং ছাত্রলীগ নেতাদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ আবুল মুনসুরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

জানতে চাইলে গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী দাবি করেন, অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে তিনি কোনো কটূক্তি করেননি। সমালোচনার সঙ্গে কটূক্তিকে গুলিয়ে ফেলা হচ্ছে। যেসব পত্রপত্রিকা মিথ্যাচার করে সংবাদ প্রকাশ করেছে, সেসব পত্রিকার সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে তিনি আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান।

এদিকে বুধবার রাত আটটায় উপজেলা সদরে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেন। মিছিল থেকে তাঁরা গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান। এ সময় নেতা-কর্মীরা বিএনপি নেতার কুশপুত্তলিকা পোড়ান।

প্রথম আলো

টেকনাফ বার্তা ২৪ এ প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য