১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে সেনাবাহিনী

Sunday,23 December 2018

teknafbarta24.com

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) থেকে সারাদেশে মাঠে থাকবেন সশস্ত্র বাহিনীর (সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী) সদস্যরা।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) মধ্যরাত থেকেই পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য তাদের মাঠে নামার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনা পেয়েই সশস্ত্র বাহিনী মাঠে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলমগীর কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ৩৮৯ উপজেলায় সেনাবাহিনী ও ১৮ উপজেলায় নৌ সদস্যদের নামানোর জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আজ (রোববার) দিাবগত রাত ১২টা থেকেই বিভিন্ন উপজেলায় অবস্থান নেবেন সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে, গত ১৩ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ২৪ ডিসেম্বর থেকে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য মোতায়েনে ইসির সিদ্ধান্তের কথা জানান। তিনি বলেন, স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করার জন্য সশস্ত্র বাহিনী ২ জানুয়ারি পর্যন্ত মাঠে থাকবে।

নির্বাচন কমিশন থেকে জানা যায়, সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি টিমের সঙ্গে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন। সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্তের পরই এ সংক্রান্ত নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। নির্বাচন কমিশন জানায়, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আদলে এবারও ‘ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’-এর আওতায় সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা কাজ করবেন।

এছাড়া, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে সারাদেশে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের মাঠে নামানো হয়েছে। এক হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি এখন মাঠে কাজ করছে বলে জানান বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মহসীন রেজা।

সারাবাংলা

টেকনাফ বার্তা ২৪ এ প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য